প্রকাশঃ Sun, Nov 17, 2019 10:07 AM
আপডেটঃ Mon, May 18, 2020 7:29 AM


ভারতের বিপক্ষে ইনিংস ব্যবধানে পরাজয়ের পরও কিছু ‘ইতিবাচক’

অনলাইন ডেস্ক

ভারতের বিপক্ষে ইনিংস ব্যবধানে পরাজয়ের পরও কিছু ‘ইতিবাচক’

ভারতের বিপক্ষে টি-২০ সিরিজের প্রথম ম্যাচে জিতে চমক দেখিয়েছিল টাইগাররা। শেষ ম্যাচেও ছিল তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতার ঝাঁজ। কিন্তু টেস্টে উল্টো চিত্র। ইন্দোরের ব্যাটিং স্বর্গে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা দাঁড়াতেই পারলেন না! অথচ ভারত প্রথম ইনিংসে ৬ উইকেটে ৪৯৩ রান করে ইনিংস ঘোষণা করে। বোলিংয়েও একই চিত্র। বাংলাদেশের বোলাররা বাইশগজে প্রতিরোধই গড়তে পারলেন না, আর ভারতের বোলারদের তান্ডবে নাভিশ্বাস উঠে গিয়েছিল টাইগার ব্যাটসম্যানদের।

বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসে ১৫০, দ্বিতীয় ইনিংসে টেনেটুনে ২১৩ রান! ভারত জিতে যায় ইনিংস ও ১৩০ রানে। মাত্র তিন দিনেই শেষ হয়ে গেল ইন্দোর টেস্ট। 

এমন হতাশাজনক পারফরম্যান্সের ইতিবাচক দিক দেখছেন বাংলাদেশ টেস্ট দলের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মুমিনুল হক। তিনি বলেন, আমি বেশ কিছু ইতিবাচক দিক পাচ্ছি। বিশেষ করে আবু জায়েদ রাহী চার উইকেট পেয়েছে। মুশফিকুর দুই ইনিংসেই (৪৩ ও ৬৪) দারুণ খেলেছে। টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানদের খুব ভালো লাইন আপের বিপক্ষে খেলতে হয়েছে, এটা একটা চ্যালেঞ্জ। উইকেটে আমাদের ১৫-২০ ওভার টেকার চেষ্টা করতে হবে।

দেশের টেস্ট স্পেশালিস্ট ব্যাটসম্যান হিসেবে পরিচিতি মুমিনুল হক আরও বলেন, ম্যাচের ফলে টস প্রভাব ফেলেছে। এটা বেশ কঠিন ছিল। আমরা জিতে ব্যাটিং বেছে নিয়েছিলাম। সিদ্ধান্তটা আসলেই কঠিন ছিল।

আগামী ২২ নভেম্বর কলকাতার ঐতিহ্যবাহী ইডেন গার্ডেন্সে শুরু হবে দুই দলের প্রথম দিবা-রাত্রির টেস্ট। সেই ম্যাচ নিয়ে মুমিনুল বলেন, দিবারাত্রির টেস্ট খেলার কোনো অভিজ্ঞতা আমাদের নেই। আমরা সে ম্যাচটা উপভোগ করার চেষ্টা করব।


বিডি প্রতিদিন


ক্যাটেগরিঃ খেলাধুলা,
ট্যাগঃ ভারতের বিপক্ষে ইনিংস ব্যবধানে পরাজয়ের পরও কিছু ‘ইতিবাচক’
ঢাকা মেট্রো নিউজ


আরো পড়ুন