প্রকাশঃ Thu, Feb 28, 2019 10:26 AM
আপডেটঃ Mon, Sep 16, 2019 6:15 PM


‘গরম চা-খিচুড়ি খেয়ে ভোট দিতে আসেন’

অনলাইন ডেস্ক

 ‘গরম চা-খিচুড়ি খেয়ে ভোট দিতে আসেন’

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র পদে উপনির্বাচন ভোট দিচ্ছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী আতিকুল ইসলাম। নবাব হাবিবুল্লাহ মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্র, আজমপুর, উত্তরা, ২৭ ফেব্রুয়ারি।

বৃষ্টির এই দিনে ‘গরম চা আর খিচুড়ি খেয়ে’ কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দেওয়ার অনুরোধ করেছেন ডিএনসিসির নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আতিকুল ইসলাম। আজ বৃহস্পতিবার নিজের ভোটটি দেওয়ার পর ভোটারদের এই আহ্বান জানান তিনি। 

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচনে মেয়র পদে উপনির্বাচনে আতিকুল ইসলাম ভোট দেন সকাল ৯টার পর। স্ত্রী ও মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে উত্তরার আজমপুরের নবাব হাবিবুল্লাহ মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে ভোট দেন তিনি।
ভোট দেওয়ার পর ওই ভোটকেন্দ্রেই গণমাধ্যম কর্মীদের সামনে কথা বলেন আতিকুল। তিনি বলেন, ‘আজ বৃষ্টি হচ্ছে। আজ ছুটির দিন। তবে আজ কিন্তু ভোটের দিনও। ভোট আপনার গণতান্ত্রিক অধিকার। এ অধিকার প্রয়োগ করুন।’
গত দুই দিনের মতো আকাশ আজও মেঘলা। থেমে থেমে ঝিরঝির বৃষ্টি হচ্ছে। এই পরিবেশে ডিএনসিসির মেয়র পদে উপনির্বাচন, নতুন ১৮টি ওয়ার্ডের সাধারণ নির্বাচন, দুইটি ওয়ার্ডে উপনির্বাচন এবং ঢাকা দক্ষিণ সিটির (ডিএসসিসি) নতুন ১৮টি ওয়ার্ডের সাধারণ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ চলছে। বিজয়ীরা নির্বাচিত হবেন এক বছরের জন্য।

এ নির্বাচনে নিজের বিজয়ে আশাবাদী আতিকুল ইসলামও। অন্য সব কেন্দ্রের মতো তিনি যে কেন্দ্রে ভোট দিয়েছেন, সেখানেও আজ সকালে ভোটার সংখ্যা ছিল খুব কম। তাই ভোট ভোটারদের প্রতি কেন্দ্রে আসার অনুরোধ শোনা গেল তাঁর কণ্ঠে। আতিক বলেন, ‘আমি সবাইকে অনুরোধ করব, আপনারা সবাই আসেন। গরম চা খেয়ে, গরম খিচুড়ি খেয়ে ভোট দিতে আসেন। আপনাদের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগ করুন।’

আতিক তাঁকে ভোট দিতেও আহ্বান জানান। বলেন, ‘ঢাকাকে সুন্দরভাবে সাজাতে ভোট চাই। সবার কাছে ভোট চাই। আমার মার্কা হচ্ছে নৌকা। এই নৌকা দেশকে দিয়েছে স্বাধীনতা। লাল সবুজের পতাকা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে মনোনয়ন দিয়েছেন।’

আতিকুল ইসলাম দেশের অগ্রগতির কথাও স্মরণ করিয়ে দেন ভোটারদের। তিনি বলেন, ‘আমরা উন্নয়নের জোয়ারে আছি। দেশের জিডিপি বেড়েছে। দারিদ্র্য কমেছে। ভোট পেয়ে নির্বাচিত হলে গতিময় ঢাকা গড়ব।’

এই নির্বাচন বর্জন করেছে বিএনপি। বড় এই দলটি ছাড়া নির্বাচন কতটুকু প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে—এ প্রশ্নের জবাবে আতিকুল বলেন, ‘আরেকটি দল যদি থাকত, অবশ্যই এ নির্বাচন আরও অংশগ্রহণমূলক হতো। এতে সন্দেহ নেই। আসলে ভালো হতো। তারপরেও কেউ আসুক বা না আসুক, নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে আমাকে মনোনয়ন দিয়েছে। নির্বাচন হবে। এবং আমার বিশ্বাস নৌকার বিজয় হবে।’

ভোটার উপস্থিতির হার কম হওয়ার বিষয়ে আতিকুল বলেন, ‘যেখানে কাউন্সিলদের নির্বাচন হচ্ছে, সেখানে অনেক প্রার্থী আছে। সেখানে অনেক ভোটার আসছে। এখানে কাউন্সিলর নির্বাচন নেই। স্বভাবতই এখানে তুলনামূলকভাবে কম হবে।’

প্রথম আলো


ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি,
ট্যাগঃ ‘গরম চা-খিচুড়ি খেয়ে ভোট দিতে আসেন’
বিভাগঃ ঢাকা
ঢাকা মেট্রো নিউজ


আরো পড়ুন