প্রকাশঃ Wed, Feb 27, 2019 4:26 PM
আপডেটঃ Tue, Jun 18, 2019 7:00 PM


মেহেদির রং শুকানোর আগেই গৃহবধূ খুন

অনলাইন ডেস্ক

 মেহেদির রং শুকানোর আগেই গৃহবধূ খুন

মাত্র দেড় মাস আগে বিয়ে হয় রুমি আক্তারের। এখনো হাত থেকে মেহেদির রং যায়নি। এর মধ্যেই গতকাল মঙ্গলবার মধ্যরাতে সিঙ্গাপুরপ্রবাসী স্বামী শরীফুল ইসলামের হাতে তিনি খুন হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলার দাড়িয়াপুর পশ্চিমপাড়া এলাকার। গতকাল রাতেই শরীফুলকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে।

পুলিশ আজ বুধবার সকালে রুমি আক্তারের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠিয়েছে। রুমির বাবা আবদুর রউফ বাদী হয়ে আজ সখীপুর থানায় শরীফুল ইসলামকে আসামি করে মামলা করেছেন।

নিহতের পরিবার ও থানা সূত্রে জানা যায়, জানুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার সুন্না গ্রামের লুৎফর রহমানের প্রবাসী ছেলে শরীফুল ইসলামের সঙ্গে সখীপুর উপজেলার দাড়িয়াপুর গ্রামের আবদুর রউফের মেয়ে রুমি আক্তারের বিয়ে হয়। শরীফুল ইসলাম চাকরি সূত্রে সিঙ্গাপুরে থাকেন।

রুমির চাচাতো ভাই ওমর ফারুকের দাবি, ছুটি নিয়ে দেশে এসে শরীফুল বিয়ে করেন। গতকাল সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শরীফুল স্ত্রীকে নিয়ে নিজের বাড়ি থেকে শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে যান। রাতের খাবার খেয়ে তাঁরা শুয়ে পড়েন। রাত ১১টার দিকে শোয়ার ঘরে রুমির চিৎকারের শব্দ শুনে বাড়ির লোকজন দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে রুমিকে খাটের ওপর পড়ে থাকতে দেখেন। রাত ১২টার দিকে তাঁকে দ্রুত সখীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক বলেন, মৃত অবস্থায় রুমিকে হাসপাতালে আনা হয়েছে।

২৩ ফেব্রুয়ারি শরীফুলের ছুটি শেষে সিঙ্গাপুর চলে যাওয়ার কথা থাকলেও তিনি যাননি।

সখীপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) লুৎফুল কবীর বলেন, এ ঘটনায় নিহতের বাবা মামলা করেছেন। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। আর স্বামী শরীফুল ইসলামকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

প্রথম আলো


ক্যাটেগরিঃ অপরাধ-ক্রাইম,
ট্যাগঃ মেহেদির রং শুকানোর আগেই গৃহবধূ খুন
বিভাগঃ ঢাকা
জেলাঃ টাঙ্গাইল
ঢাকা মেট্রো নিউজ


আরো পড়ুন