প্রকাশঃ Fri, Dec 21, 2018 2:29 PM
আপডেটঃ Sun, May 17, 2020 10:35 PM


যে কারণে মামলা হলো রনির বিরুদ্ধে

অনলাইন ডেস্ক

যে কারণে মামলা হলো রনির বিরুদ্ধে

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পটুয়াখালী-৩ আসনের ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী গোলাম মাওলা রনির বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন-২০১৮ এর কয়েকটি ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২০ ডিসেম্বর) রাতে গলাচিপা থানায় মামলাটি করা হয়। মামলা করেন গলাচিপা আওয়ামী লীগের নির্বাচনী পরিচালনা কমিটির যুগ্ম-আহবায়ক ও গলাচিপা মহিলা কলেজের সহযোগী অধ্যাপক মেহেদী মাসুদ। মামলা নম্বর-১৪।

মামলার আসামিরা হলেন, পটুয়াখালী-৩ (গলাচিপা-দশমিনা) আসনের ধানের শীষের প্রার্থী ও একই আসনের আওয়ামী লীগের সাবেক এমপি গোলাম মাওলা রনি, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি শাহজাহান খান, রনির ভাই সরোয়ার হোসেন, শ্যালক মকবুল হোসেন, চিকনিকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান শিপলু খান ও শাহআলম সানু।

রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আসামিদের কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি।

গলাচিপা থানার ওসি আখতার মোর্শেদ জানান, মামলার বিবরণে উল্লেখ করা হয়েছে “গত ১৫ ডিসেম্বর দুপুরে গলাচিপা টিএন্ডটি সড়কে গোলাম মাওলা রনি’র স্ত্রীসহ তার পরিবারের সদস্যরা আত্মঘাতি ঘটনা ঘটিয়ে আইনশৃঙ্খলার অবনতি ও নিরাপত্তা বিঘ্নিত করে, যা মোবাইলে কথোপকথনের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ভাইরাল হয়। এতে জনমনে ভীতির সৃষ্টি করেছে, যা আসন্ন নির্বাচনে বিরূপ প্রভাব পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

বিবরণে আরও বলা হয়, ওই আত্মঘাতি ঘটনা বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় প্রচার ও প্রকাশিত হয়। বাদি যেহেতু পটুয়াখালী-৩ (গলাচিপা-দশমিনা) আসনের আওয়ামী লীগের নির্বাচনী পরিচালনা কমিটির যুগ্ম-আহবায়ক সেহেতু তার সম্মান খুণ্ন হয়েছে।”

গলাচিপা থানার ওসি আখতার মোর্শেদ বলেন, বাদীর অভিযোগের ভিত্তিতে ডিজিটিাল নিরাপত্তা আইন-২০১৮ এর ২৫/৩১/৩৫ ধারায় মামলাটি নেয়া হয়েছে।

মামলার বিষয়ে গোলাম মাওলা রনি বলেন, মামলাটি মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। হাইকোর্টের নির্দেশনা আছে যে, ক্ষতিগ্রস্তরা ছাড়া একই ঘটনায় অন্য কোন পক্ষ মামলা করতে পারবে না। এখানে আমার স্ত্রীসহ পরিবারের লোকজন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এ ঘটনায় আমার স্ত্রীর অভিযোগ পুলিশ গ্রহণ না করে আইন লঙ্ঘন করেছে। উল্টো আমাদের বিরুদ্ধে একটি সাজানো মামলা দায়ের করা হয়েছে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা আমার স্ত্রী ও বোনের উপর হামলা চালায় ও তাদের গাড়ি ভাঙচুর করে। পরে আমার স্ত্রীসহ আহতরা গলাচিপা থানায় অভিযোগ দিতে গেলেও পুলিশ তা নেয়নি।

হামলায় তার স্ত্রী এবং বোনের স্বর্ণালঙ্কার লুট হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন গোলাম মাওলা রনি।

উল্লেখ্য, ১৫ ডিসেম্বর শনিবার দুপুরে গলাচিপা পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের টিএন্ডটি এলাকায় প্রচরণা চালিয়ে ফেরার সময় রনি’র স্ত্রী-বোনসহ গলাচিপা পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান আবু তালেব মিয়াকে বহনকরা মাইক্রোবাসে হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা।

এতে গোলাম মাওলা রনি’র স্ত্রী লুনা আক্তার, তার বোন এবং গলাচিপা পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান হাজী আবু তালেব মিয়াসহ ৬ জন আহত হয়।

বিডি প্রতিদিন


ক্যাটেগরিঃ আইন-আদালত,
ট্যাগঃ যে কারণে মামলা হলো রনির বিরুদ্ধে
ঢাকা মেট্রো নিউজ


আরো পড়ুন