শিরোনাম

প্রকাশঃ Sun, Oct 31, 2021 2:40 PM
আপডেটঃ Sat, Dec 4, 2021 11:24 PM


প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ড, ভারতের সামনে ১৮ বছরের রেকর্ড বদলের চ্যালেঞ্জ

অনলাইন ডেস্ক

প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ড, ভারতের সামনে ১৮ বছরের রেকর্ড বদলের চ্যালেঞ্জ

ফেভারিট হিসেবে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু করেছিল ভারত। কিন্তু একটা পরাজয় বদলে দিয়েছে গোটা চিত্র। আজ রবিবার বিশ্বকাপে টিকে থাকতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে নামবে টিম ইন্ডিয়া। গ্রুপ টেবিলের যা হাল তাতে পাকিস্তানের সেমিফাইনালে যাওয়া নিশ্চিত। দ্বিতীয় দল হিসেবে শেষ চারে যাওয়ার লড়াই ভারত এবং নিউজিল্যান্ডের মধ্যে। আজকের ম্যাচই কার্যত কোয়ার্টার ফাইনাল। হারলেই কার্যত বিদায়। গ্রুপের বাকি তিনটি ম্যাচ জিতলেও বড় কোনও অঘটন না ঘটলে আর সুযোগ থাকবে না। এইরকম পরিস্থিতিতে দুবাইয়ে উইলিয়ামসনের দলের বিরুদ্ধে নামবে কোহলি বাহিনী। তবে মরণ-বাঁচন ম্যাচে মাঠে নামার আগে ভারতীয় শিবিরকে কিছুটা চিন্তায় রাখবে পরিসংখ্যান।

গত ১৮ বছর নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে আইসিসির কোনও টুর্নামেন্ট জেতেনি ভারত। ২০০৩ সাল থেকে শুরু হয়েছিল। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালেও সেটা বহাল রেখেছে কিউয়িরা। কেন উইলিয়ামসনের দলের বিরুদ্ধে যা রেকর্ড ভারতের, কোহলিদের বিরুদ্ধে পাকিস্তানেরও ঠিক তেমনই ছিল। কিন্তু সকল হিসেব বদলে দিয়েছে বাবর আজমরা। পাকিস্তানের পথ অনুসরণ করে রবিবার ভাগ্যের চাকা ঘোরাতে নামবে ভারত। ২৯ বছর পর যা পেরেছে পাকিস্তান, ১৮ বছর পর কি সেটা পারবে না ভারত? টিম ইন্ডিয়ার ড্রেসিংরুমে এই প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছে। দুই বছর আগে এই নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরেই বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিয়েছিল ভারত। সেটাই ছিল মহেন্দ্র সিং ধোনির শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ। এবার ক্যাপ্টেন কুল ভারতের ড্রেসিংরুমে অন্য ভূমিকায়। তাই কোনওভাবেই ২০১৯ সালের পুনরাবৃত্তি চান না তিনি।

ভারতীয় শিবিরে চিন্তার নাম ট্রেন্ট বোল্ট। দুই বছর আগে ৫০ ওভারের বিশ্বকাপে একাই শেষ করে দিয়েছিলেন ভারতকে। বোল্টের বিরুদ্ধে ট্র্যাক রেকর্ড ভাল না রোহিতের। এরপরও আইপিএলে একই দলে খেলায় হিটম্যানের দুর্বলতা জানেন কিউয়ি স্পিডস্টার। প্রথম ম্যাচে ব্যর্থ হয়েছিলেন রাহুলও। তাই বোল্টকে সামলানোর জন্য বিশেষ অনুশীলন করেই নামবে টিম ইন্ডিয়া। ভারতীয় দলে ডান হাতি ব্যাটারের সংখ্যা বেশি। কিউয়ি বাঁহাতি পেসারের কথা ভেবে দলে পরিবর্তন আনা হতে পারে। ঋষভ পন্থ এবং রবীন্দ্র জাদেজা ছাড়া দলে কোনও বাঁহাতি ব্যাটার নেই। তাই সূর্যকুমারের বদলে ফর্মে থাকা বাঁহাতি ঈশান কিষানকে খেলানো হতে পারে। হার্দিককে নিয়ে ধোঁয়াশা থাকলেও তাকে প্রথম একাদশে দেখার সম্ভাবনাই বেশি। দুইদিন আগে থেকেই নেটে বোলিং শুরু করে দিয়েছেন ভারতের এই অলরাউন্ডার। নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ডু অর ডাই ম্যাচে হার্দিককে হয়ত বাদ দিতে চাইবেন না কোহলি।

নিউজিল্যান্ড ম্যাচে ভারতের টিম কম্বিনেশন কী হবে সেই নিয়েই চর্চা চলছে ড্রেসিংরুমে। ভুবনেশ্বর কুমারের জায়গায় শার্দূল ঠাকুরের দলে ফেরা প্রায় পাকা। অনেক ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ চাইছেন এ ইধরনের ম্যাচে আশ্বিনের অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে। কিন্তু তাকে খেলানো হবে কিনা সেই নিয়ে সংশয় রয়েছে। এদিকে পাকিস্তানের কাছে প্রথম ম্যাচ হারায় চাপে নিউজিল্যান্ডও। আজ রবিবার উইলিয়ামসনদের সামনেও জয় ছাড়া কোনও গতি নেই। তাই বোল্ট, সাউদির সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হবে মিলনেকে। সেই সঙ্গে রয়েছেন নিশাম, স্যান্টনারও। কিউয়িদের ব্যাটিংয়েও যথেষ্ট ভারসাম্য রয়েছে। ভারতকে দেখলেই জ্বলে ওঠেন মার্টিন গাপ্টিল। গোড়ালির চোট সরিয়ে মাঠে নামার জন্য তৈরি। তার কাছে বড় রানের আশা করবে নিউজিল্যান্ড। মিডল অর্ডারে উইলিয়ামসনের মতো নির্ভরযোগ্য ব্যাটার রয়েছে। বিশ্বকাপ এখনও অধরা নিউজিল্যান্ডের। গত দুইবার ৫০ ওভারের বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠেও খালি হাতে ফিরতে হয়েছে। এবার সেই জ্বালা মেটাতে চাইবে কিউয়িরা। যার শুরুটা হতে পারে ভারত ম্যাচ থেকেই।


বিডি-প্রতিদিন


ক্যাটেগরিঃ খেলাধুলা,
ট্যাগঃ প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ড
ঢাকা মেট্রো নিউজ


আরো পড়ুন